২৪ ঘন্টাই খবর

কেন বার্সেলোনা ছাড়লেন না মেসি?

প্রতি ঘণ্টায় ঘণ্টায় খবর আসছে ইউরোপের ক্লাবগুলো কে কাকে দলে নিচ্ছে। ফুটবল দলবদলের ভীড়ে একমাত্র লিওনেল মেসি ছিলেন আলাদা একটা জায়গায়। শেষ পর্যন্ত মেসির খবর বেরিয়েছিল তিনি বার্সেলোনাতেই থাকছেন। যদিও এখনো আনুষ্ঠানিক চুক্তিস্বাক্ষর হয়নি। আর মেসি কিংবা বার্সেলোনার পক্ষ হতে জানিয়ে দিয়েছে কেউ মুখ খুলবে না। আনুষ্ঠানিক চুক্তি না হওয়া পর্যন্ত কোনো কথা সংবাদমাধ্যমে বলাও যাবে না। মেসির অর্ধেক বেতনে বার্সেলোনায় থাকছেন এই খবর দুনিয়া জেনে গেছে। দুর্দান্ত ফর্মে থাকা কোপার ট্রফি জয় করা মেসি অর্ধেক বেতনে বার্সাতে থাকবেন এবং ২০২৬ সাল পর্যন্ত থাকবেন। অর্ধেক বেতনে রাজি হওয়া মেসিকে নিয়ে ফুটবল দুনিয়ায় প্রশ্ন উঠছে। কৌতূহল উঠছে মেসির মতো সুপার ফর্মে থাকা বিশ্ব ফুটবলের যাদুকর মেসি কেন বার্সেলোনায় অর্ধেক টাকায় খেলতে রাজি হলেন।বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের সাবেক কোচ মারুফুল হক বললেন, ‘মেসি কেন বার্সেলোনায় থেকে গেলেন সেটা এত দূর হতে বলা কঠিন। এটা বাংলাদেশের কোনো দলের খবর হতো তাহলে হালকা কিছু বলা যেত। আমরা এত দূরে, কীভাবে বলব। বলা কঠিন এবং এটা মেসির ব্যক্তিগত বিষয়। তবে আমার পর্যবেক্ষণ হচ্ছে বার্সার প্রতি ভালোবাসা থেকেই রয়ে গেছেন মেসি। শুধুই কী ভালোবাসা? মারুফ হাসতে হাসতে উত্তর দিলেন, ‘মেসির জীবনে আর কী পাওয়া বাকি আছে। সবই তো পেয়েছেন মেসি।’ অর্ধেক বেতনে খেলবেন মেসি ‘বেতন ছাড়া খেললেই বা কী হবে? বেতন ছাড়া খেললে তার কী আসে যায়। মেসি ভালো মানুষের পরিচয় দিয়েছেনÑবললেন মারুফ।বার্সার এখনকার খেলোয়াড়দের সঙ্গে মেসি কি মানিয়ে নিতে পারছেন না? মারুফ বলছেন, ‘এটা কোনো ব্যাপার না। জাভি, ইনিয়েস্তা, পিকে, পুয়েলরা মেসির সমান ছিলেন না। এখন মেসির আশপাশে যারা আছেন তারা ওদের চেয়ে আরো ভালো হতেও পারেন। মেসি হয়ত এখনকার খেলোয়াড়দের সঙ্গে আরো ভালোভাবে মানিয়ে নিতে পারবেন। সবচেয়ে বড় কথা কি বার্সায় জীবনটা কাটিয়েছেন মেসি, তাই বার্সার প্রতি মেসির ভালোবাসা থাকবে এটাই স্বাভাবিক।’মেসি এখন যুক্তরাষ্ট্রে। আর্জেন্টিনায় মেসির জন্মস্থান রোজারিও হতে দুই দিন আগেই যুক্তরাষ্ট্রের মিয়ামিতে নিজের বাড়িতে উঠেছেন। সঙ্গে তার পরিবার। ১৫ জনের একটি দল দুটি বিমানে আর্জেন্টিনা হতে মিয়ামি গেছেন। সেখান থেকে ক্যারিবীয় দ্বীপে যাবেন এবং সেখান থেকে স্পেনে ফিরবেন মেসি এবং তার পরিবার।

Leave A Reply

Your email address will not be published.