২৪ ঘন্টাই খবর

বাউফলের কনকদিয়া ইউনিয়নে হত্যার উদ্দেশ্যে কৃষকে কুপিয়ে জখম

প্রতিনিধি বাউফল :
পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার কনকদিয়া ইউনিয়নের হোগলা গ্রামের কৃষক মোঃ আসলাম হাওলাদারকে কোপানোর ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। গত শুক্রবার (৯ জুলাই) সন্ধ্যায় কৃষক আসলাম হাওলাদারের স্ত্রী আয়শা বেগম বাদী হয়ে এ হত্যাচেষ্টা মামলা (নং ১০) দায়ের করেন।
এদিকে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় কৃষক আসলাম হাওলাদার বলেন, ‘বৃহস্পতিবার বিকালে প্রতিপক্ষের কিছু রাজাহাঁস আমার ধানের বীজ ক্ষেত একাধিকবার নষ্ট করে। বীজ ক্ষেত নষ্ট করার কারনে আমি রাজাহাঁস গুলোকে একাধিকবার তাড়িয়ে দেই। এতে হামলাকারীরা ক্ষিপ্ত হয়ে ও পূর্বপরিকল্পিতভাবে প্রতিপক্ষ চানু হাওলাদার(৬০), শানু হাওলাদার(৭০), সুমন হাওলাদার(৩৫), আনু হাওলাদার(৬০), ফিরোজ হাওলাদার(৩৮), জামাল মৃধা সহ একাধিক যুবক আমাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে মারাত্মক জখম করে। প্রতিপক্ষের ধারালো দায়ের কোপে আমার মাথায় ও হাতে গভীর জখম হয়। এছাড়াও আমার শরীরের বিভিন্নস্থানে গুরুতর জখম হয়। এ সময় প্রতিপক্ষ আমাকে মৃত ভেবে বীজ ক্ষেতে ফেলে রেখে চলে যায়। পরে স্থানীয়রা আমাকে উদ্ধার করে প্রথমে বাউফল উপজেলা স্বাস্থ্য ভর্তিকরা হয় পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য শেবামেক হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।
বিষয়টি নিয়ে কথা হলে শেবামেক হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক জানান, ওই কৃষকের মাথায় ও হাতে গভীর জখম হয়েছে। এছাড়াও তার শরীরের বিভিন্নস্থানে গুরুতর জখম রয়েছে।
এ বিষয়ে বাউফল থানার ওসি আল-মামুনের সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি বলেন, ‘কৃষক আসলাম হাওলাদারকে কোপানোর ঘটনায় তার স্ত্রী আয়শা বেগম বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছে। আসামীদের গ্রেপ্তারের অভিযান চলছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.