২৪ ঘন্টাই খবর

কুলিয়ারচরে সাংবাদিকদের মাঝে মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ করেন ওসি সুলতান মাহামুদ

মুহাম্মদ কাইসার হামিদ, কিশোরগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃ

মরণঘাতী কোভিড-১৯ করোনা প্রতিরোধে সুরক্ষার জন্য কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচরে সাংবাদিকদের মাঝে মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ করেন থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এ.কে.এম সুলতান মাহামুদ।

সততা ও নিষ্ঠার সহিত দায়িত্ব পালনে এক বছর পূর্তি উপলক্ষে কুলিয়ারচর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এ.কে.এম সুলতান মাহামুদ শুক্রবার (৯জুলাই) বিকালে তার নিজ অফিস কক্ষে স্থানীয় সাংবাদিকদের সাথে এক মতবিনিময় শেষে সকল সাংবাদিকদের মিষ্টিমুখ করান। পরে তিনি সাংবাদিকদের মাঝে মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ করেন।

মতবিনিময় কালে উপস্থিত ছিলেন, কুলিয়ারচর উপজেলা প্রেসক্লাবে সাবেক সভাপতি এডভোকেট মুহাম্মদ শাহ আলম, সাবেক সভাপতি মুহাম্মদ কাইসার হামিদ, দৈনিক আমাদের সময় প্রতিনিধি মো. নাঈমুজ্জামান নাঈম, দৈনিক খোলা কাগজ প্রতিনিধি মোছা. শুভ্রা, দৈনিক পূর্বকণ্ঠ নিজস্ব প্রতিবেদক শাহীন সুলতানা, দৈনিক আজকের বিজনেস বাংলাদেশ প্রতিনিধি মৌসুমী আক্তার ও দৈনিক জাগো প্রতিদিন প্রতিনিধি মো. সবুজ মিয়া প্রমূখ।

এ সময় সাংবাদিকবান্ধব ওসি এ.কে.এম সুলতান মাহামুদ বলেন, দেশের ক্রান্তিলগ্নে সম্মুখযোদ্ধা হিসেবে মাঠে পুলিশের পাশাপাশি সাংবাদিকরাও নিষ্ঠার সহিত কাজ করে আসছেন। পুলিশের কাজ কেবল আইনশৃঙ্খলা রক্ষা বা চোর-ডাকাতদের গ্রেফতার করাই না। আরও অনেক সামাজিক দায়িত্বও পালন করতে হয়। আর সাংবাদিক হলো সমাজের আয়না। সাংবাদিকদের মাধ্যমে সমাজ অনেক কিছুই দেখতে পায়। তাই সাংবাদিকরাই পুলিশের প্রকৃত বন্ধু। সাংবাদিকদের মাধ্যমে যেমন এলাকার ভালো মন্দের খবর পাওয়া যায় তেমনি পুলিশের দুর্নীতির খবরও পাওয়া যায়। তাই বলে সাংবাদিকদের পুলিশের শত্রু ভাবার কোন কারণ নেই। তাদের অবস্থান পুলিশের বিরুদ্ধে নয়। তারা পুলিশের পক্ষেই আজীবন কাজ করেছেন। তাই পুলিশের প্রকৃত বন্ধু হলো সাংবাদিক। সম্প্রতি গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন বা টিভি চ্যানেলে প্রচারিত সংবাদের ভিত্তিতে অনেক দুর্নীতিবাজ পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছে পুলিশের উর্ধতন কর্তৃপক্ষ। পুলিশের উর্ধতন কর্তৃপক্ষ চান দুর্নীতিমুক্ত পুলিশ এবং মাদকমুক্ত সমাজ গড়ে উঠুক। এ ক্ষেত্রে পুলিশ এবং সাংবাদিকগণ একে অপরের পরিপূরক হিসেবে কাজ করছে।এলাকার মাদক সেবনকারী ও মাদক ব্যবসায়ীসহ সকল অপরাধ ও অপরাধীদের সম্পর্কে তথ্য দেওয়ার জন্য উপস্থিত সাংবাদিকদের নিকট সহযোগিতা কামনা করেন তিনি।

উল্লেখ্য, ইন্সপেক্টর এ.কে.এম সুলতান মাহামুদ ঢাকা রেঞ্জ অফিস থেকে বদলীর আদেশ পাওয়ার সাথে সাথে গত বছরের ৯ জুলাই বৃহস্পতিবার কুলিয়ারচর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হিসেবে যোগদান করে রাত ১১ টার দিকে ওসি আব্দুল হাই তালুকদারের নিকট থেকে দায়িত্ব বুঝে নিয়ে সততা ও নিষ্ঠার সহিত দায়িত্ব পালন করে এলাকায় সুনাম অর্জন করে আসছেন। এলাকার শিশুরা তাকে “চকলেট স্যার” হিসেবে চিনেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.