২৪ ঘন্টাই খবর

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে জেলা পুলিশের কার্যক্রম অব্যাহত

পার্থ প্রতিম ভদ্র, ফরিদপুর:
বৈশ্বিক মহামারী করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) এর ক্রমবর্ধিষ্ণু সংক্রমন প্রতিরোধে দেশের অভ্যন্তরে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধের লক্ষ্যে ১ জুলাই ২০২১ বৃহস্পতিবার সকাল ০৬.০০ ঘটিকা হতে ১৪ জুলাই ২০২১ বুধবার মধ্যরাত পর্যন্ত মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ, মাঠ প্রশাসন সমন্বয় অধিশাখা বিধি-নিষেধ আরোপ করেন।
এরই ধারাবাহিকতায় ফরিদপুর জেলা পুলিশের উদ্যেগে করোনা ভাইরাসের সংক্রমন প্রতিরোধে কঠোর বিধি-নিষেধ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি সমুন্নত রেখে জনগণের জানমালের নিরাপত্তা বিধানকল্পে বিভিন্ন নিরাপত্তামূলক পুলিশি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।
কঠোর বিধি-নিষেধ পালনে আইন শৃঙ্খলা রক্ষার্থে ফরিদপুর জেলা সদরে কোতয়ালী থানা ও অন্যান্য ০৮টি থানা এলাকায় মোট ১২টি চেকপোস্ট ও ২৯ টি মোবাইল টিম গঠনের মাধ্যমে নিরলসভাবে ফরিদপুর জেলা পুলিশ কাজ করে যাচ্ছে।
ফরিদপুর জেলা পুলিশের পাশাপাশি বাংলাদেশ সেনাবাহিনী, RAB, বিজিবি এবং বাংলাদেশ আনসারের সদস্যবৃন্দ মোতায়েন রয়েছে।
অদ্য ০৭ জুলাই ২০২১ বুধবার সকাল ০৬:০০ ঘটিকা হতে পালাক্রমে জেলা পুলিশ বিভিন্ন পোস্টে মোতায়েন হয়ে কাজ করছে।
মোবাইল টিমে নিয়োজিত পুলিশ সদস্যদের মাধ্যমে করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) এর সংক্রমন রোধকল্পে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে মাইকিংসহ বিভিন্ন সচেতনতামূলক বক্তব্য প্রদান করা হয়েছে।
ফরিদপুর জেলায় সরকারি বিধি-নিষেধ অমান্য করায় ০৬ জুলাই ২০২১ বিকাল ১৬:০০ ঘটিকা হতে ০৭ জুলাই ২০২১ বিকাল ১৬:০০ ঘটিকা পর্যন্ত নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কর্তৃক পরিচালিত মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে কোতয়ালী থানা এলাকায় ১০ জনকে ৩৭০০ টাকা, ভাংগা থানা এলাকায় ১০ জনকে ৩৪০০ টাকা, সদরপুর থানা এলাকায় ০৩ জনকে ৬০০০ টাকা এবং সালথা থানা এলাকায় ০১ জনকে ৫০০ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।
গত ২৪ ঘণ্টায় মোট ২৪ জনকে ১৩৬০০ (তের হাজার ছয়শত) টাকা জরিমানা করা হয়।
এছাড়া ভাঙ্গা থানা পুলিশ কর্তৃক ০২ জনকে দোকান খোলা রাখার অপরাধে আটক করা হয়েছে।
সদরপুর থানা পুলিশ কর্তৃক ০৭ টি মোটরসাইকেল ও ০৪টি অটো গাড়ি, কোতয়ালী থানা পুলিশ কর্তৃক ১৩টি অটো গাড়ি, ভাংগা থানা পুলিশ কর্তৃক ০৭ টি অটো গাড়ি আটক করা হয়েছে।
গত ২৪ ঘণ্টায় সর্বমোট ২৬টি অটো গাড়ি এবং ০৭টি মোটরসাইকেল আটক করা হয়েছে।
আলফাডাঙ্গা পৌর-এলাকায় মাস্ক ব্যতিত ঘোরাফেরা করার জন্য ০২ জনকে পুলিশ আইনের ৩৪ ধারায় গ্রেফতার করে বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়।
কোভিড-১৯ এর সংক্রমন প্রতিরোধে সরকার কর্তৃক আরোপিত বিধি-নিষেধ মেনে চলার জন্য জনসাধারণকে অনুরোধ করা হচ্ছে। অতি জরুরী প্রয়োজনে যারা বের হবেন তাদেরকে পরিচয়পত্র, জরুরী প্রয়োজনের স্বপক্ষে প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস, ব্যক্তিগত যানবাহন নিয়ে বের হওয়ার ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় উপকরণ ও কাগজপত্রাদি (যেমন: হেলমেট, ড্রাইভিং লাইসেন্স, রেজিস্ট্রেশন পেপার ইত্যাদি) সঙ্গে রাখার জন্য অনুরোধ করা হলো।

Leave A Reply

Your email address will not be published.