২৪ ঘন্টাই খবর

মুন্সীগঞ্জে প্রেমের ফাঁদে পড়ে নারী গণধর্ষণ, আটক-২ ।

মুন্সীগঞ্জে প্রেমের ফাঁদে পড়ে নারী গণধর্ষণ, আটক-২

 

আবু সাঈদ দেওয়ান, মুন্সীগঞ্জ: মুন্সীগঞ্জে প্রেমের ফাঁদে পড়ে গণধর্ষণের শিকার হয়েছে এক নারী। এ ঘটনায় জড়িত দু’জনকে গ্রেফতার করেছে শ্রীনগর থানা পুলিশ। ২৮ শে জুন সোমবার শ্রীনগর উপজেলার ভাগ্যকুল ইউনিয়নের মধ্যপূর্ব কামারগাঁও আল আকসা জামে মসজিদ রোডের এম আর ফুট অ্যান্ড ক্যামিক্যাল কোম্পানির ফ্যাক্টরীতে নিয়ে ওই নারীকে গণধর্ষণ করা হয়।

 

ভুক্তভোগী নারীর তথ্য সুত্রে জানা যায়, বরিশালের উজিরপুর থানার গাববাড়ি গ্রামের ফারুক হাওলাদারের ছেলে ইমরান হাওলাদারের (২১) সাথে তার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। ইমরান শ্রীনগর উপজেলার কামারগাঁও গ্রামের এম আর ফুট অ্যান্ড ক্যামিক্যাল ফেক্টরিতে চাকরি করতো। ইমরান তাকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে শ্রীনগর আসতে বলে। সে বরিশাল থেকে শ্রীনগর উপজেলার কামারগাঁও আসে। পরে ইমরান ও ওই এলাকার খলিল শেখের ছেলে রিপন (৩৬) শেখসহ চার-পাঁচজন বখাটে তাকে এম আর ফুট অ্যান্ড ক্যামিক্যাল ফেক্টরিতে আটক করে পালাক্রমে গণধর্ষণ করেন। ২৮ শে জুন সোমবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ওই গৃহবধূ ফ্যাক্টরি থেকে পালিয়ে বেড় হয়ে ঘটনা এলাকাবাসীকে জানায়। পরে সে শ্রীনগর থানায় গণধর্ষণের অভিযোগে মামলা করে।

 

এ বিষয়ে ফ্যাক্টরির মালিক লিটন জানায়, আমি স্বপন ঘোষের কাছ থেকে জায়গা ভাড়া নিয়ে সেমাই ফেক্টরি করে ছিলাম। তখন রিপন ও ইমরানসহ অনকেই আমার এ ফেক্টরিতে কাজ করতেন। তবে দু’বছর ধরে ফেক্টরিটি বন্ধ রয়েছে। রিপন শেখ হয়তো আগেই ফেক্টরির চাবি বানিয়ে রেখে ছিল। ওই চাবি দিয়েই বখাটেরা ফেক্টরির তালা খুলে ভেতরে প্রবেশ করেছে।

 

এ বিষয়ে শ্রীনগর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. হেদায়েতুল ইসলাম ভুইঞা বলেন, এ ঘটনায় মামলা হয়েছে। ইতিমধ্যে দু’জন আসামিকে গ্রেফতার করে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। বাকিদেরও গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.