২৪ ঘন্টাই খবর

বউ তালাক দিয়ে শাশুড়িকে বিয়ে সদর উপজেলা বিএনপি নেত কর্মীদের ক্ষোভ।

বউ তালাক দিয়ে শাশুড়িকে বিয়ে সদর উপজেলা বিএনপি নেতা কর্মীদের ক্ষোভ

 

স্টাফ রিপোর্টার: সম্প্রতি গাজীপুর সদর উপজেলা বিএনপি’র কমিটি নিয়ে কেন্দ্রীয় পর্যায়ে নেতাকর্মীদের চলছে দৌড়ঝাঁপ। সদর উপজেলার নেতাকর্মীদের মুখে শোনা যাচ্ছে সদর উপজেলা বিএনপি’র হাল ধরতে চান মির্জাপুর ইউনিয়নের বহুরাচালা গ্রামের মৃত আব্দুল কাইয়ুম মুসুল্লীর ছেলে আবু তাহের মুসল্লী। উপজেলার নেতাকর্মীরা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন আবু তাহের মুসল্লী তার প্রথম স্ত্রী মির্জাপুর ইউনিয়নের পাইনশাইল গ্রামের আনিস মোক্তারের মেয়ে আছমা বেগম কে বিয়ে করে কয়েক বছর সংসার করার পর প্রথম স্ত্রীকে তালাক দিয়ে আছমা বেগমের গর্ভধারিনী মা বাহার জান কে দ্বিতীয় স্ত্রী হিসেবে গ্রহণ করে। তাদের দ্বিতীয় সংসারে বিপ্লব হোসেন ও বিথী আক্তার নামে দুইটি সন্তান রয়েছে। এখানেই থেমে রন নি আবু তাহের মুসল্লী। পাবনা থেকে ভাওয়াল মির্জাপুর ‘স’ মিলে কাজ করতে আসা শ্রমিক সুকুমারকে ভয়-ভীতি দেখিয়ে তার সুন্দরী বউ জোসনা রানী কে তৃতীয় বিয়ে করে দ্বিতীয় স্ত্রী হিসেবে রেখেছে। স্থানীয় নেতাকর্মীরা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন প্রথম স্ত্রীকে তালাক দিয়ে শাশুড়িকে বিয়ে করেন এমন একজন ব্যক্তিকে যদি সদর উপজেলা বিএনপি’র গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বে আনা হয় তাহলে দল তার কাছ থেকে ভালো কিছু আশা করবে বলে মনে হয় না। স্থানীয় নেতাকর্মীরা কেন্দ্রীয় নেতাকর্মীদের কাছে দলের জন্য ত্যাগী ও পরিশ্রমী সংগ্রাম আন্দোলনে যারা শক্ত হাতে হাল ধরতে পারে এমন নেতাকর্মীদেরকে বাছাই করার আহ্বান জানান।

Leave A Reply

Your email address will not be published.