২৪ ঘন্টাই খবর

শ্রীপুরে পোশাক শ্রমিককে তিন বন্ধু মিলে পালাক্রমে ধর্ষণ, প্রধান আসামি আটক 

শ্রীপুর গাজীপুর প্রতিনিধিঃ
গত তিন মাস পূর্বে বাসের মধ্যে সাগরের সাথে পরিচয় হয় পোষাক শ্রমিক এক নারীর।পরিচয়ের সুবাদে তাদের মাঝে সখ্যতা হয়।রবিবার(২৭ জুন) দুপুরে ঘুরতে নিয়ে যাওয়ার কথা বলে একটি বাড়িতে নিয়ে সাগরের দুই বন্ধুসহ পালাক্রমে ধর্ষণ করে ও-ই নারীকে।এরপর তিন ধর্ষক ভুক্তভোগী নারীর সাথে থাকা স্বর্ণালঙ্কার লুটে নিয়ে মেয়েটিকে একটি বাঁশঝাড়ে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়।
ঘটনাটি ঘটেছে গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার মাওনা ইউনিয়নের ইন্দ্রপুর গ্রামের আনোয়ার বেগম আনুর বাড়িতে।ভুক্তভোগী নারী পোশাক শ্রমিক উপজেলার টেপিরবাড়ি গ্রামের পল্লী চিকিৎসক জসিমের বাড়িতে ভাড়া থেকে স্থানীয় একটি পোশাক কারখানায় কাজ করেন।ওই নারী সাতক্ষীরা জেলার সদর উপজেলার বাসিন্দা বলে জানা গেছে।
পরে ও-ই নারী বাদী হয়ে রবিবার রাতে চারজনের নাম উল্লেখ করে থানায় মামলা দায়ের করেছেন।অভিযুক্তরা হলেন, রাজবাড়ী জেলার সদর উপজেলার লক্ষী নারায়ণপুর গ্রামের কলিম উদ্দিন শেখের ছেলে মো. সাগর শেখ (৩১), মো. বাবু (৩২) পিতা মৃত আব্দুল আলিম, নাজমুল(৩০) পিতা আব্দুল করিম ও গাজীপুর জেলার শ্রীপুর উপজেলার ইন্দ্রপুর গ্রামের মৃত রহিম উদ্দিনের স্ত্রী আনোয়ার বেগম আনু (৪০)।এই ঘটনায় প্রধান আসামী মোঃ সাগর শেখকে গ্রেফতার করেছে শ্রীপুর থানা পুলিশ।
শ্রীপুর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত)ইমতিয়াজ মহফুজ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ধর্ষণ মামলার প্রধান আসামি সাগরকে গ্রেফতার করে আদাতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। বাকি আসামীদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যহত রয়েছে।ভুক্তভোগী ও-ই নারী পোশাক শ্রমিককে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য গাজীপুর শহিদ তাজ উদ্দিন আহাম্মেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.