২৪ ঘন্টাই খবর

বাগেরহাটে একদিনে আক্রান্ত ১২৪ জন ; মৃত্যু ২ জনের 

সোহেল রানা বাবু, বাগেরহাট প্রতিনিধি :
বাগেরহাটে ২৮/০৬/২০২১ সোমবার একদিনে করোনা আক্রান্ত ১২৪ জন ও মৃত্যু হয়েছে ২ জনের। জেলা স্বাস্হ্য বিভাগের দেয়া তথ্য মতে এ নিয়ে জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ৩ হাজার ১৮৩ জনে, মৃত্যু হয়েছে ৮১ জনের । সুস্থ্য হয়েছে ২ হাজার ২০০শ ৩৩ জন। বাগেরহাটের সিভিল সার্জন ডা. কে এম হুমায়ুন কবির জানান, বাগেরহাট জেলায় লকডাউন চললেও করোনা সংক্রমণের লাগাম টেনে রাখা কঠিন হয়ে যাচ্ছে। সোমবার বাগেরহাটে ২৬৭ জনের নমুনা পরীক্ষায় নতুন করে ১২৪ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এদিন করোনা আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ০২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে বাগেরহাট সদর উপজেলায় ১ জন, মোংলায় ১ জন।
এদিকে, বাগেরহাটে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ উদ্বেগজনক হারে বাড়তে থাকায় সাতদিনের লকডাউন ৫ম দিনের মতো অব্যাহত রয়েছে। পাঁচ দিন ধরে দোকানপাট, শপিংমল ও অভ্যন্তরীণ ১৬টি রুটে যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। স্থানীয়দের বাড়িতে রাখতে এবং বাইরে বেরোনো মানুষদের স্বাস্হ্যবিধি পালনে কঠোর অবস্থানে রয়েছে প্রশাসন। স্বাস্হ্যবিধি না মানলে এবং অপ্রয়োজনে বাড়ির বাইরে আসলে তাদের জরিমানা করছে তারা। গত চার দিনে স্বাস্হ্যবিধি না মানায় ১ লক্ষ ২২ হাজার ৩০০ টাকা জরিমানা আদায় করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময়ে মামলা দায়ের করে ২৩১ জনের বিরুদ্ধে ।
বাগেরহাট জেলা প্রশাসনের নেজারত ডেপুটি কালেক্টর (এনডিসি) মোহাম্মদ শাহজাহান বলেন, বাগেরহাটে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ উদ্বেগজনক হারে বাড়ছে। লোকজন করোনা স্বাস্হ্যবিধি না মেনে অপ্রয়োজনে বাড়ির বাইরে আসছেন এবং স্বাস্হ্যবিধি প্রতিপালন করছেন না তাদের বিরুদ্ধে মামলাসহ জরিমানা করা হচ্ছে। করোনা সংক্রমণ রোধে বাগেরহাটের বিভিন্ন এলাকায় ভ্রাম্যমাণ আদালত প্রতিদিনই কঠোর নজরদারি করছে। সবাইকে স্বাস্হ্যবিধি মেনে ঘরে থাকার আহ্বান জানান এই কর্মকর্তা।
বাগেরহাটের পুলিশ সুপার কে এম আরিফুল হক করোনা সংক্রমন ঠেকাতে লকডাউনের প্রথমদিন থেকে নিজেই মাঠে রয়েছেন। একারনে বাগেরহাটের প্রবেশ দ্বারের পুলিশ চেক পোষ্ট গুলো বেশ কড়া কড়ি ভাবে অপ্রয়োজনে মানুষের চলাচল নিয়ন্ত্রন করতে সক্ষম হচ্ছে । পুলিশের একাধিক দল জেলার সর্বত্র টহল দিচ্ছে। এছাড়া জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে অসহায় দু:স্থ মানুষের মধ্যে খাদ্য সহায়তা প্রদান করা হয়েছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.