২৪ ঘন্টাই খবর

দৌলতখানে লম্পট পিতা কর্তৃক নিজ কন্যাকে ধর্ষণ ও গর্ভপাতের ঘটনায় এলাকাবাসীর বিচার দাবি

মোঃ ফরিদুল ইসলাম :
দৌলতখানে নিজ কন্যাকে দিনের পর দিন ধর্ষণ করে গর্ভপাত ঘটিয়ে ঘটনাটি প্রভাবশালী কর্তৃক ধমাচাপা দিয়ে লম্পট পিতা অলি বীরদর্পে ঘুরে বেড়াচ্ছে। এ ঘটনায় স্থানীয়দের মাঝে চরম ক্ষোভ বিরাজ করছে।
হাফেজ মোঃ বেলাল জানায়,দৌলতখান পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ডের হাসপাতাল এবং থানা ভবন সংলগ্ন আঃ বারেকের ছেলে অলি দীর্ঘ দিন যাবত তার ১৪ বছরের মেয়েকে ইচ্ছার বিরুদ্ধে ধর্ষণ করে আসছে। ধর্ষণের ফলে মেয়েটি অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পরলে গোপনে গর্ভপাত ঘটায়। পরে ঘটনাটি জানাজানি হলে লম্পট পিতা অলি ওই ঘটনাটি প্রভাবশালী কর্তৃক ধামাচাপা দেয়। এদিকে লম্পট স্বামী অলির বিরুদ্ধ তার স্ত্রী বিভিন্ন গন্যমান্য ব্যক্তিদের কাছে বিচার দাবী করেও বিচার না পেয়ে কয়েকজন আলেমের কাছে বিষয়টি জানান। পরবর্তীতে ধুরন্ধর অলি তার স্ত্রী ও মেয়েকে ভয়ভীতি দেখিয়ে অন্যত্র সরিয়ে নিয়ে লুকিয়ে রাখে।
অপরদিকে অলির বাসার ভাড়াটিয়া জনৈক জাকির হোসেন ঘটনাটি জেনে লম্পট অলির বিরুদ্ধে বিচার দাবী করে দৌলতখান পৌরসভার মেয়র জাকির হোসেন তালুকদার এর কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। স্থানীয় ঔষধ ব্যবসায়ী ফয়সাল জানান, অলির বাড়ির ভাড়াটিয়া জাকির এর কাছ থেকে ঘটনা শুনেছি। পরে অলির বাড়ির পাশে  ড্রেনে গিয়ে বেশ রক্ত  দেখেছি।
অভিযুক্ত অলি অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, তার স্ত্রী ও মেয়ের মাথায় সমস্যা রয়েছে। তারা আমার বিরুদ্ধে এ ধরনের কথা বলবেই। তবে সাংবাদিকরা তার স্ত্রী ও মেয়ের সাথে কথা বলতে চাইলে অলি কৌসলে তাদেরকে ঘর থেকে পিছন দিয়ে বের করে দেয়। পরে সাংবাদিকদের বলে তারা বাসায় নেই। স্ত্রী ও মেয়ের মাথায়  সমস্যা থাকার কথা বললেও অলির শ্যালক তার বোন ও ভাগ্নির মাথায় কোন সমস্যা নেই বলে নিশ্চিত করেছেন। এলাকাবাসী অলির এই অপকর্মের বিচার দাবি করেছেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.