২৪ ঘন্টাই খবর

র‌্যাব অভিযানে কুখ্যাত টেঁটাসর্দার ও একাধিক হত্যা মামলার আসামী সুমেদ আলী গ্রেফতার

নরসিংদী থেকে হলধর দাস :

বিভিন্ন অপরাধের উৎস উদঘাটন, অপরাধীদের গ্রেফতার, আইন শৃংখলার সামগ্রিক উন্নয়নে নিরলস কাজের অংশ হিসেবে র‌্যাব-১১ নরসিংদী ব্যাটেলিয়নের এক অভিযানে রায়পুরার চরাঞ্চলীয় নিলক্ষ্যার কুখ্যাত টেঁটা সর্দার ও একাধিক মামলার আসামী সুমেদ আলী(৫২) গ্রেফতার হয়েছে। র‌্যাব-১১, সিপিএসসি,নরসিংদী’র কোম্পানী কমান্ডার ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট মোঃ তৌহিদুল মবিন খান রবিবার এক প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে জানান, শনিবার(১৯ জুন ২০২১)র‌্যাব-১১,নরসিংদী’র একটি চৌকস আভিযানিক দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে নরসিংদী জেলার রায়পুরা থানাধীন আতোশআলী বাজার এলাকা হতে তাকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। ধৃত সুমেদ আলী একাধিক হত্যাকান্ডসহ বিভিন্ন মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত আসামী। গ্রেফতারকৃত আসামীর নিকট হতে নগদ ১৮,০০০/- টাকা ও ০১টি বাটন মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়। গ্রেফতারকৃত আসামী সুমেদ আলী (৫২)এর পিতার নাম মৃত মন্নর আলী, গ্রামঃ হরিপুর, পোঃ নিলক্ষা, থানাঃ রায়পুরা, জেলাঃ নরসিংদী।

প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানা যায় যে, গ্রেফতারকৃত আসামী দীর্ঘদিন যাবৎ পলাতক ছিলো। আসামী সুমেদ আলী রায়পুরা চর এলাকায় লাঠিয়াল বাহিনীর প্রধান। উক্ত এলাকায় সংগঠিত প্রায় সমস্ত টেঁটাযুদ্ধের নেতৃৃত্ব দান করত এই সুমেদ আলী। এছাড়াও সে জোরপূর্বক চর দখল ও সাধারণ গ্রামবাসীদের সংঘাতে জড়াতে বাধ্য করত। তার বিরুদ্ধে রায়পুরা থানায় করা বিভিন্ন মামলার এজাহার থেকে জানা যায় যে, সে সক্রিয়ভাবে বিভিন্ন হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত ছিল। টেঁটাযুদ্ধ, হত্যা, চাঁদাবাজির মাধ্যমে এলাকায় সে দীর্ঘদিন যাবৎ সন্ত্রাসী কার্যক্রম পরিচালনা করে জনমনে ভীতি সঞ্চার করে আসছে। তার নামে রায়পুরা থানায় একাধিক হত্যা মামলাসহ ১০ (টি) মামলা রয়েছে এবং ০৬ (ছয়)টি গ্রেফতারী পরোয়ানা রয়েছে। দীর্ঘদিন গোয়েন্দা নজরদারীর মাধ্যমে আসামীর অবস্থান নিশ্চিত হয়ে র‌্যাব-১১ এর একটি চৌকশদল আসামীকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। আসামীর বিরুদ্ধে পরবর্তী আইনী ব্যবস্থা নেয়ার জন্য রায়পুরা থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.