২৪ ঘন্টাই খবর

নেত্রকোণার হাওড়ে জোয়ারের পানিতে মাছ ধরার উৎসব

গজনবী বিপ্লব:

বৈশাখ-জৈষ্ঠ মাস আসলেই হাওড়ে জোয়ারের পানিতে মাছ ধরার উৎসবে মেতেছে উঠেন মাছ শিকারীরা। কার্তিক মাস থেকে চৈত্র মাসের মাঝামাঝি পর্যন্তু শুকনু মৌসুম। হাওড় অঞ্চলে রয়েছে বিশাল বিশাল হাওড়। তার মাঝে উল্লেখ যোগ্য মোহন গঞ্জের ডিঙ্গাপুতা, চন্দ্রসোনারথাল, মদনের গণেষ, খালিয়াজুরির কির্তনখোলা, ফাদা,পাঙ্গাশিয়া, নয়ারবন, বড়ইতলী, বৌড়া হাওড়সহ রয়েছে ছোট বড় আরও অনেক হাওড়। বড় নদীর মধ্য রয়েছে, ধনু, মগড়াসহ আরও অনেক নদী। বৈশাখ মাসের শুরুতে যখন বৃষ্টি শুরু হয় তখন কয়েক দিন বৃষ্টির পর যখন নদীর পানি বৃদ্বি পায় তখন মাছ বৃষ্টির পানি বৃদ্বিরসাথে নদী থেকে মাছ এই সব হাওড়ে ও বিলে প্রজননের জন্য চলে আসে কম পানিতে।
কয়েক মাস প্রায় দমবন্ধ হয়ে থাকার পর নুতন পানির স্পর্শে মাছগুলো দ্বিগবেদিক ছুটা ছুটি করে, অল্প কদিনেই মাছের স্বাস্থ্য চেহারা পালটে যায়। জোয়ারের পানি ঢুকার সাথে সাথেই নদী-নালায় খাল বিলে মাছ ধরার উৎসব দেখা যায়।
বৃষ্টি ও জোয়ারের পানিতে প্রজননের সময় রাতের বেলায় মেঘের গর্জনে বোয়াল, রুই, আইর,গনিয়া, সউল, টাকি কইমাছসহ বেশ কয়েক প্রজাতির মাছ অল্প পানিতে ছুটে আসে। বৃষ্টি হলেই শত শত শিকারীরা সুযোগ বুঝে রাতে টর্চলাইট, হেজাক জ্বালিয়ে ঠেডা (কুছ) জুতিয়া, পলো নিয়ে নৌকায় বা পায়ে হেটেঁ নেমে যায় মাছ শিঁকারে।
আকাশে মেঘ দেখে বৃষ্টি হলেই সুযোগ সন্ধনী শিকারীরা আগে থেকেই প্রস্তুত থাকে এই সময়টার আশায়।
মাছ শিকার করে মহা খুশিতে বাড়ি ফিরেন শিকারীরা।

Leave A Reply

Your email address will not be published.