২৪ ঘন্টাই খবর

‘স্বাধীনতার চেতনাবিরোধীরাই ইতিহাস বিকৃতির নতুন ষড়যন্ত্রে নেমেছে’

আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য, ১৪ দলীয় জোটের সমন্বয়ক ও মুখপাত্র আমির হোসেন আমু বলেছেন, ‘বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মধ্য দিয়ে যারা মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে হত্যা করেছে, যারা এ দেশের স্বাধীনতায় বিশ্বাসী নয়, স্বাধীন বাংলাদেশে এখনও যারা স্বাধীনতার গন্ধ খুঁজে পায়নি, তারাই ইতিহাস বিকৃতির নতুন ষড়যন্ত্রে নেমেছে।’

ঐতিহাসিক ৭ মার্চ উপলক্ষে মঙ্গলবার (৯ মার্চ) কেন্দ্রীয় ১৪ দল আয়োজিত ভার্চুয়াল আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। বিএনপির ৭ মার্চ পালনের নামে ইতিহাস বিকৃতির সমালোচনা করে তিনি বলেন, ‘১৯৭৫ সালে বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর দীর্ঘ ২১ বছর দুঃশাসনের সময় যে ষড়যন্ত্র সফল হয়নি, সে ষড়যন্ত্র আর সফল হবে না। কারণ, দেশের মানুষ এখন অনেক বেশি সচেতন।’

আমির হোসেন আমু বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণই ছিল স্বাধীনতার ঘোষণা ও স্বাধীনতা অর্জনের পথনির্দেশনা, ছিল যুদ্ধ জয়ের কলা-কৌশল। এই ঐতিহাসিক সত্যকে যারা অস্বীকার করতে চায়, তারা ইতিহাসের আস্তাকুঁড়ে নিক্ষিপ্ত হবে।’

সভায় আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের আরেক সদস্য তোফায়েল আহমেদ বলেন, ‘৭ মার্চের ভাষণ প্রচারে যারা বাধা দিত, হঠাৎ তাদের ৭ মার্চ পালন রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত।’

আওয়ামী লীগের মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক সম্পাদক মৃণাল কান্তি দাসের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ, বাংলাদেশের সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়ুয়া, তরিকত ফেডারেশনের চেয়ারম্যান মাওলানা নজিবুল বশর মাইজভান্ডারী, বাংলাদেশ গণ আজাদী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট এস কে সিকদারসহ কেন্দ্রীয় ১৪ দলের নেতারা।

Leave A Reply

Your email address will not be published.