২৪ ঘন্টাই খবর

আশুলিয়ায় অবৈধ ও অসর্তক ভাবে চলছে সিলিন্ডার গ্যাস ব্যবসা

শিল্প অঞ্চল আশুলিয়ায় লাইসেন্স বিহিন অবৈধ ও অসর্তক ভাবে চলছে জমজমাট সিলিন্ডার গ্যাসের ব্যবসা । প্রায় প্রতিটা পাড়া-মহল্লা রয়েছে ব্যপক হুমকীর মুখে । যে কোন মুর্হুতে ঘটতে পারে অনাকাংখীত বড় ধরনের র্দূঘটনা ।

 সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়:নরশিংহপুর বুড়িপাড়া বাজার রোডে “হক ইলেকট্রনিক্স” নামে প্রতিষ্ঠানের মালিক “মো: আব্দুল হক” লাইসেন্স বিহিন অবৈধ ও অসর্তক ভাবে এবং সরকারি বিধিনিষেধ না মেনে চালাচ্ছে গ্যাস সিলিন্ডার ব্যবসা । সরকারি নিয়োমে খুচরা বিক্রেতাদের বেলায় যেখানে, ১০টি সিলিন্ডার গ্যাসের বোতল বাহিরে রেখে বিক্রয় অনুমোদন উলেখ্য রয়েছে । সেখানে একই স্থানে জনবহুল এলাকায় রাস্তার পাশে তৈল জাতীয় পদার্থের সাথে প্রায় তিন শতাধিক গ্যাস সিলিন্ডার প্রখর রোদের মধ্যে রেখে বিক্রয় করছে । এবিষয়ে জানতে চাইলে: “হক ইলেকট্রনিক্স” এর প্রপাইটর বলেন তিনি সকল কাগজপত্র নিয়েই ব্যবসায় নেমেছেন,তবে উক্ত বিষয়ে তার জানা নেই । তবে ১/২ সপ্তাহের মধ্যে নতুন কোন গুডাউন তৈরি করে সেখানে স্থানান্তর করা হবে ।

এলাকা বাসী বলেন, বাড়তি মুনাফা লাভের আসায় বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও মুদি দোকানগুলোর সামনে সাড়া আশুলিয়ার প্রতিটা পাড়া মহল্লায় একই চিত্র চোখে পরে । রাস্তার পাশে এবং প্রখর রোদে রেখে বিক্রি হচ্ছে বিভিন্ন কোম্পানির সিলিন্ডার গ্যাস । এই এলাকায় প্রায়ই ঘটছে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণের মত ঘটনা । আমরা এমনিতেই আতংকে রয়েছি । এর পরও এই এলাকায় যে হারে মেয়াদ উর্ত্তিণ সিলিন্ডারে বিভিন্ন কোম্পানির গ্যাস সিলিন্ডার বিক্রয় হচ্ছে তাতে যে কোন মুহুর্তে ঘটতে পারে বড় ধরনের অনাকাংখিত দূর্ঘটনা । সাভার ফায়ার স্টেশনের কর্তব্য রত ডিউটি অফিসার মো: তুহিন সংবাদ কর্মীকে জানায়: সিলিন্ডার গ্যাস বিক্রি করা ব্যপারে তাদের কোন নিয়োম জানা নেই ।

Leave A Reply

Your email address will not be published.