২৪ ঘন্টাই খবর

দেবিদ্বার উপজেলা পরিষদের উপ-নির্বাচনে বিপুল ভোটে নৌকার বিজয়

কুমিল্লা সংবাদদাতা : কুমিল্লা দেবিদ্বার উপজেলা পরিষদের উপ-নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে নানা জল্পনা কল্পনা ও নাটকীয়তার আবসান ঘটিয়ে আওয়ামীলীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী মো: আবুল কালাম আজাদের ‘নৌকা’ প্রতিক বিপুল ভোটে বিজয়ী হয়েছে। নির্বাচন চলাকালে ২/১টি বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়া শান্তিপূর্ণভাবে ভোটগ্রহন সম্পন্ন হয়েছে।রোববার সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ভোট গ্রহন অনুষ্ঠিত হয়। বেলা ১২টার পর থেকে কেন্দ্রগুলো প্রায় ভোটার শূণ্য হয়ে পড়ে। নির্বাচনী পরিবেশ অবাধ ও সুষ্ঠ করতে এবং ভোটারদের নিরাপদে ভোটকেন্দ্রে যেয়ে ভোট প্রদানে নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে স্থানীয় প্রশাসনের উদ্যোগে নিরাপত্তা বলয় তৈরীতে, র‌্যাব, পুলিশ, বিজিবি, ষ্ট্রাইকিং ফোর্স এবং আনসার সহ প্রায় সহস্রাধীক আইনশৃংখলা বাহিনীর সদস্য মোতায়েন রেখেছিল। দলীয় ও উপজেলা রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্র জানায়, এই উপজেলার উপ-নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে চারজন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। নির্বাচনে ৩ লক্ষ ৭৫ হাজার ৫০২ জন ভোটারের জন্য তৈরী ১১৪ টা ভোটকেন্দ্রের বেসরকারী ফলাফলে জানা যায়, আওয়ামী লীগের প্রার্থী আবুল কালাম আজাদ (নৌকা) ৯৫ হাজার ৫৬৪ ভোট, তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির প্রার্থী এ এফ এম তারেক মুন্সী (ধানের শীষ) ৫৯ হাজার ১৪২ ভোট, জাতীয় পার্টির আবদুল আউয়াল সরকার (লাঙ্গল) ৭৮১ ভোট ও স্বতন্ত্র প্রার্থী আবদুল হক খোকন ( আনারস) ৫৫৩ ভোট পেয়েছেন এবং আওয়ামী লীগের আবুল কালাম আজাদ ৩৬ হাজার ৪২২ ভোট বেশি পেয়ে বেসরকারীভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। বাতিল ভোট ২হাজার ১২৯ ভোট এবং মোট ভোট পড়ে ১ লক্ষ ৫৬ হাজার ৪০ ভোট। ৪৬.৮৬% ভোট পড়েছে। দলীয় ও সংশ্লিষ্ট একাধিক সূত্রে জানা গেছে, আবুল কালাম আজাদ আওয়ামীলীগের মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী হলেও দলের একটা অংশ প্রকাশ্যে বিএনপির প্রার্থী এ এফএম তারেক মুন্সীর পক্ষে প্রচারণায় অংশ নেয়। এ ছাড়াও অনেক নেতা-কর্মী তাঁর বিপক্ষে গোপনেও কাজ করেছেন। দলীয় একটি বড় অংশ বিরোধীতা করলেও এই নির্বাচনে যোগ্য প্রার্থী হিসেবে তাঁর জয়ী হওয়ার মধ্যদিয়ে আওয়ামীলীগেরই প্রকৃত বিজয় হয়েছে। এ ছাড়া আবুল কালাম আজাদ দীর্ঘদিন ধরে দেবিদ্বারের বিভিন্ন সামাজিক কর্মকান্ডে নিজেকে সম্পৃক্ত করে দেবিদ্বারের উন্নয়নে কাজ করেছেন বলে দাবি করে তিনি বলেন, ইশতেহার অনুযায়ী দায়িত্ব গ্রহণ করার প্রথম তিন মাসের মধ্যে উপজেলার দুর্নীতি ও অনিয়ম বন্ধ করা হবে। পর্যায়ক্রমে উন্নয়নমূলক কাজ করে যাব।’ উল্লেখ্য, গত বছরের ৩ ডিসেম্বর দেবিদ্বার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জয়নুল আবেদীন করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরন করলে চেয়ারম্যান পদটি শূন্য হয়ে যায়। উক্ত শূণ্য আসনে ২৮শে ফেব্রুয়ারী ২০২১খ্রী:(রবিবার) উপ-নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। নির্বাচন চলাকালে উপজেলার বক্রিকান্দি উচ্চ বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্রে সকাল ১১টায় আ’লীগ’র নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আবুল কালাম আজাদ প্রবেশের পরপরই বিএনপি’র সমর্থকরা বাঁধাপ্রদান করায় উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘাত সৃষ্টি হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে পুলিশ ১৫ রাউন্ড ফাকা গুলি ছুড়ে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.