২৪ ঘন্টাই খবর

রবির শেয়ার ছেড়ে দিচ্ছেন প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরা

সাধারণ বিনিয়োগকারীদের আগ্রহে ছিলো শেয়ারবাজারে টেলিযোগাযোগ খাতে তালিকাভুক্ত বহুজাতিক কোম্পানি রবি আজিয়াটা। ফলে শেয়ারের দাম ধরাবাহিকভাবে বেড়েছে। সাধারণ বিনিয়োগকারীদের আগ্রহ থাকলেও কয়েকগুণ লাভে বিনিয়োগ প্রত্যাহার করে নিয়েছেন প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরা।

গত বছরের ডিসেম্বরের তুলনায় চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে রবি থেকে ০.৩৯ শতাংশ বিনিয়োগ প্রত্যাহার করে নিয়েছেন প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরা।

বুধবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

রবি আজিয়াটার আইপিও বিজয়ীদের মধ্যে সাধারণ বিনিয়োগকারী একটি বিও হিসাবে ৫০০ শেয়ার পেয়েছেন। কিন্তু প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারী পেয়েছেন ২ লাখ ৭৫ হাজার শেয়ার। এতে শেয়ার দাম অস্বাভাবিক বাড়ায় বেশি লাভবানও হয়েছেন তারা।

এ পরিস্থিতিতে সাধারণ বিনিয়োগকারীর আগ্রহ থাকাকালীন বিনিয়োগ প্রত্যাহার করে নিতে শুরু করেছেন প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরা। যার ধারাবাহিকতায় গত বছরের ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে ২ কোটি ৮২ লাখ ৮৪ হাজার ৮৪০টি শেয়ার বিক্রি করে দিয়েছেন তারা। এরপর চলতি বছরের জানুয়ারিতে তারা আরও ২ কোটি ৪ লাখ ২৭ হাজার ৯৪০টি শেয়ার বিক্রি করে দিয়েছেন।

রবির আইপিওতে ৪০ শতাংশ কোটায় প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরা ১৫ কোটি ৫০ লাখ ৯৬ হাজার ৯৬০টি শেয়ার পায়। যা ছিলো কোম্পানিটির মোট পরিশোধিত মূলধনের ২.৯৬ শতাংশ। তবে ২০২১ সালের ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত ওই শেয়ার ধারণ বা মালিকানা ২.০৩ শতাংশে নেমে এসেছে। অর্থাৎ ওই সময়ের মধ্যে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরা ৪ কোটি ৮৭ লাখ ১২ হাজার ৭৮০টি শেয়ার বিক্রি করে দিয়েছেন। ফলে ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত রবি আজিয়াটায় প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের শেয়ার ধারণ নেমে এসেছে ১০ কোটি ৬৩ লাখ ৮৪ হাজার ১৮০টিতে।

প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরা রবি আজিয়াটা থেকে বেরিয়ে গেলেও সাধারণ বিনিয়োগকারীরা যুক্ত হচ্ছেন। ফলে রবির শেয়ার লেনদেনের আগে সাধারণ বিনিয়োগকারীদের হাতে শেয়ার ছিলো ৭.০৪ শতাংশ। আর চলতি বছরের ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত তা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭.৯২ শতাংশ।  সূত্র: রাইজিংবিডি

Leave A Reply

Your email address will not be published.