২৪ ঘন্টাই খবর

কুষ্টিয়ায় ভাইয়ের শশুর রক্তাক্ত করলো ছোট ভাইয়ের স্ত্রীকে!

ডাঃ হাবিব : কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে বড় ভাইয়ের স্ত্রী ও শশুড় কুপিয়ে ও পিটিয়ে আহত করেছে ছোট ভাইয়ের স্ত্রীকে। ৩ ডিসেম্বর ২০২১ শনিবার সকালে নন্দলালপুর ইউনিয়নের শিবরামপুর গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।
ছোট ভাই তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খুলতে পারছেননা বড় ভাইয়ের শশুড়বাড়ীর লোকজনের ভয়ে বলে জানা গেছে। আহত হয়েছেন উপজেলার নন্দলালপুর ইউনিয়নের আরিফুল ইসলামের স্ত্রী রুনা খাতুন (২৪)।
ভুক্তভোগী আরিফুল ইসলাম জানান, ২০১১ সালে তার বড় ভাই শরিফুল ইসলাম মালয়েশিয়া যাবার জন্য তার কাছ থেকে চার লাখ ৩০ হাজার টাকা ধার হিসেবে নিয়ে বিদেশ পাড়ি জমান। এতো বছর হয়ে গেলেও বড় ভাই তার টাকা পরিশোধ করেননি।
শুক্রবার তিনি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের মাল কেনার উদ্দেশ্য ঢাকা গেলে টাকার প্রয়োজন হওয়ায় তার স্ত্রীকে ফোন দিয়ে বড় ভাবির কাছ থেকে টাকা নিয়ে পাঠানোর কথা বলেন। তার স্ত্রী বড় ভাবী বন্যা খাতুনের নিকট টাকার কথা বললে বড় ভাবী  অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন।
এসময় তার স্ত্রী প্রতিবাদ করলে বড় ভাবি বটি দিয়ে তার স্ত্রীর মাথায় কোপ দেয় এবং বড় ভাইয়ের শশুড় হেকমত আলী তার স্ত্রীকে রড দিয়ে মুহুর্মুহু আঘাত করলে তিনি সংজ্ঞাহীন হয়ে পরেন। পরবর্তীতে পার্শ্ববর্তী পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে কুমারখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে ভর্তি করেন।
এ সময় তার ৪ বছরের শিশু ও আঘাত প্রাপ্ত হয়। তিনি আরো জানান, ঢাকা থেকে ফিরে এসে রোববার  কুমারখালী পৌর শিশুপার্ক সংলগ্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান রাতে বন্ধ করার সময় একই ইউনিয়নের এলঙ্গীপাড়া গ্রামের বড় ভাইয়ের  শ্যালক লিটন হোসেন ও ফরিদ হোসেন দেশীয়  অস্ত্র নিয়ে তাকে তাড়া করলে তিনি দৌড়ে পালিয়ে নিজেকে রক্ষা করেন। বর্তমানে বড় ভাইয়ের শশুড়বাড়ির লোকজনের ভয়ে তিনি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রেখে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন বলে জানান।
এ বিষয়ে কুমারখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুজ্জামান তালুকদার জানান, অভিযোগ পেয়েছি মামলা হয়েছে, আসামীদের গ্রেফতার করার চেষ্টা চলছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.