২৪ ঘন্টাই খবর

সিরাজগঞ্জে বেলকুচিতে নির্বাচনে হেরে প্রতিপক্ষের বাড়িঘর ভাঙচুর ও মারধরে আহত-৮

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি :
সিরাজগঞ্জের বেলকুচি উপজেলার বড়ধুল ইউনিয়নে নির্বাচনকে কেন্দ্র করে প্রতিহিংসা বশত ১নং ওয়ার্ডের মেম্বার পদপ্রার্থী (তালা) প্রতিকের বাড়িঘর ভাঙচুর ও তালা প্রতিক শরীফের মা সহ তার সমর্থকদে মারধর করে ৮ জনকে গুরুতর আহত করেছেন প্রতিপক্ষ ঐ ওয়ার্ডের সাবেক মেম্বার নজরুল ইসলাম ও তার সমর্থকরা,
গত ২৮ তারিখের নির্বাচন শেষে ফলাফল ঘোষণা সময় অতর্কিত ভাবে সাবেক মেম্বার নজরুল ইসলাম (মোরগ) প্রতিক ও তার সমর্থকরা হামলা চালিয়ে বাড়িঘর ভাঙচুর ও ৮ জনকে গুরুতর আহত করে চলে যান। স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান এবং গুরুতর আহতদে সিরাজগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
স্থানীয়রা জানান,সাবেক মেম্বার নজরুল ইসলাম (মোরগ) প্রতিক ও তার সমর্থকরা নির্বাচন শেষে ভোট গনগনার অবস্থা দেখে কেন্দ্র থেকে গিয়ে (তালা) প্রতিক শরিফের বাড়িঘর ভাঙচুর ও ৮ জনকে এলোপাতাড়ি মারধর করে। শরিফের মার অবস্থা আশঙ্কাজনক। স্থানীয়রা আরও বলেন এ ধরনের কাজ করা ঠিক হয়নি নির্বাচনে জয়পরাজয় থাকবেই,
এ ব্যাপারে নবনির্বাচিত মেম্বার শরিফ (তালা) প্রতিক জানায়,আমি নির্বাচন শেষে ভোট কেন্দ্রে ফলাফলের জন্য অপেক্ষা করতে থাকলে প্রতিপক্ষ সাবেক মেম্বার ও তার সমর্থকগণ আমার বাড়িতে গিয়ে হামলা চালিয়ে আমার মা,খালা,মামা,চাচাসহ ৮ জনকে এলোপাতাড়ি মারধর করে এবং টাকা পয়সা, গোহনা লুটপাট করে নিয়ে  যায়। পরে স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়। আমার মায়ের অবস্থা আশঙ্কাজনক। আমি আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল তাই এ ব্যাপারে আদালতে মামলা দায়ের করেছি।
এ বিষয়ে সাবেক মেম্বার নজরুল ইসলাম (মোরগ) প্রতিকের নিকট জানতে চাইলে তিনি জানান,নির্বাচন শেষে আমি বাড়িতে চলে যাই,আমার সমর্থকদের সাথে হাতাহাতি হয়েছে,তবে লুটপাট টাকা পয়সা, গোহনা
নেয়া এটি ভিত্তিহীন,আমি জানতে পেরে আমার সমর্থকদের সরিয়ে নিয়ে আসি এবং শান্ত থাকার নির্দেশ দেই,
এদিকে বড়ধুল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আছির উদ্দিন মোল্লা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে উভয় পক্ষকে শান্ত থাকার নির্দেশ দেন স্থানীয়দের নিয়ে বসে একটি সুষ্ঠু মীমাংসার আশ্বাস দেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.