২৪ ঘন্টাই খবর

পদ্মা সেতু এলাকা থেকে গ্রেফতার মোট ১৭ জন ভারতীয়

পদ্মা সেতু এলাকা থেকে গ্রেফতার মোট ১৭ জন ভারতীয়

 

তুষার আহাম্মেদ- পদ্মা সেতু এলাকা থেকে গত সাড়ে চার বছরে ১৭ ভারতীয় নাগরিককে গ্রেফতার করা হয়েছে। সন্দেহজনকভাবে ঘোরাফেরা করার অভিযোগে শরীয়তপুরের জাজিরা ও মাদারীপুরের শিবচর থানা-পুলিশ তাদের গ্রেফতার করে। এ ব্যাপারে ১৩টি মামলাও হয়েছে। পুলিশ কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, গ্রেফতার ব্যক্তিদের বেশিরভাগই পাগলের মতো আচরণ করেছেন। তাদের কয়েকজন নিজের নাম-পরিচয়ও বলেননি।

শরীয়তপুর জেলা পুলিশ জানিয়েছে, গ্রেফতার ব্যক্তিদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের পর অবৈধ অনুপ্রবেশের অভিযোগে মামলা করে তাদের আদালতে পাঠানো হয়। এ ঘটনায় দায়ের করা ১১টি মামলায় শরীয়তপুর জেলা-পুলিশ অভিযোগপত্র দিয়েছে।

সম্প্রতি লৌহজং উপজেলার পদ্মা সেতুর সংরক্ষিত এলাকায় প্রবেশের চেষ্টাকালে গ্রেপ্তার ভারতের নাগরিক উপেন্দ্র বিহারকে (৪৫) ছয় দিনের রিমান্ড দিয়েছেন আদালত। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে তাকে হাজির করে রিমান্ড আবেদন করা হলে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আরফাতুল রাকিব ছয় দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও লৌহজং

থানার পরিদর্শক মো. রাসেল মিয়া এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, গত বুধবার বিকালে ভারতের নাগরিক উপেন্দ্র বিহারকে মুন্সীগঞ্জ আদালতে হাজির করে ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করা হয়। বিচারক শুনানির জন্য গতকাল বৃহস্পতিবার দিন ধার্য করেন। আসামি কোনো প্রশ্নের জবাব দিতে পারেননি। তিনি তার বাবার নাম বিন্দাশ্রী বিহার বলে দাবি করেছেন। তিনি একই প্রশ্নের ভিন্ন ভিন্ন জবাব দিচ্ছে।

জাজিরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহবুবুর রহমান বলেন, ২০১৭ সাল থেকে জাজিরা থানার পদ্মা সেতু এলাকা থেকে ১৬ জন ভারতীয়কে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের কাছ থেকে কোনো ভিসা কিংবা পাসপোর্ট পাওয়া যায়নি। অবৈধভাবে তারা বাংলাদেশে প্রবেশ করেছিলেন। ২০২০ সালের ৬ মার্চ পদ্মা সেতু এলাকা থেকে গ্রেফতার হন ভারতীয় নাগরিক প্রমথ কুমার চঞ্চল ও সঞ্জয় সেন।

আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কর্মকর্তারা বলেছেন, এসব লোকজন কেন পদ্মা সেতু এলাকায় ঘোরাফেরা করছিলেন, তার কোনো কারণ জানা যায়নি। জিজ্ঞাসাবাদে তাদের কাছ থেকে তেমন কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি

Leave A Reply

Your email address will not be published.